বনদপ্তরের "বন সহায়কে"র চাকরির পরীক্ষায় বাধ্যতামূলক বাংলা, বাংলা পক্ষর ঐতিহাসিক সাফল্য - Banglar Chokh | True News for All

Breaking

Home Top Ad

Post Top Ad

Friday, July 31, 2020

বনদপ্তরের "বন সহায়কে"র চাকরির পরীক্ষায় বাধ্যতামূলক বাংলা, বাংলা পক্ষর ঐতিহাসিক সাফল্য

বাংলায় রাজ্য সরকারি চাকরির পরীক্ষায় বাংলা বাধ্যতামূলকের আন্দোলনে বড় সাফল্য পেল বাংলা পক্ষ। পশ্চিমবঙ্গ সরকারের বন বিভাগের "বন সহায়ক" পদের চাকরির বিজ্ঞপ্তি বেরিয়েছে। বিভিন্ন জেলায় অস্থায়ী পদের চাকরি। ২০০০ পদে নিয়োগ হবে।

বিজ্ঞপ্তিতে (যা বাংলায় প্রকাশিত হয়েছে) স্পষ্ট বলা হয়েছে চাকরি পেতে বাংলার স্থায়ী বাসিন্দা হতেই হবে। আরও গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার হলো চাকরির পরীক্ষা ১০০ নম্বরের, যার মধ্যে ৬০ নম্বরের বাংলা বাধ্যতামূলক এবং ১০ নম্বরের ইংরেজি বা হিন্দি পরীক্ষা। অর্থাৎ বাঙালিরা ৬০ নম্বরের বাংলা পরীক্ষা এবং ১০ নম্বরের ইংরেজি পরীক্ষা দিয়ে এই চাকরি সহজেই পেতে পারে। 


এই সাফল্য যুগান্তকারী। কারণ বাঙালির এই দাবি বাংলার মাটির দাবি। মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী ২১ জুলাই এর ভাষণের পর এক সপ্তাহের মধ্যেই কথা রাখলেন। বাংলার ভূমিপুত্রদের প্রতি রাজ্য সরকার যে দায়বদ্ধ, এই সিদ্ধান্তেই তা স্পষ্ট। চাকরি প্রার্থীরা সকলেই এই বিজ্ঞপ্তি দেখে মুখ্যমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানাচ্ছেন।


বাংলা পক্ষ দীর্ঘদিন ধরেই এই লড়াই লড়ছে। বাংলা পক্ষর মূল দাবিই হল সরকারি চাকরির পরীক্ষায় বাংলা বাধ্যতামূলক করা এবং বেসরকারি চাকরিতে ভূমিপুত্র সংরক্ষণ। এই নিয়ে সব সময়ই সোচ্চার তারা৷

বাংলা পক্ষ সংগঠন এই ঐতিহাসিক সাফল্যে উচ্ছ্বসিত। সংগঠনের পক্ষ থেকে রাজ্য সরকারকে ধন্যবাদ জানানো হচ্ছে। রাজ্য সরকার বাঙালির ভোটে নির্বাচিত, তাই রাজ্য সরকার থেকে সব চাকরির পরীক্ষায় বাংলা বাধ্যতামূলক করবে- বাঙালি এটাই আশা করে। আগামীতে পিএসসিতে ১০০ নম্বরের বাংলা বাধ্যতামূলক করার আন্দোলন আরও জোরদার হবে। 

এক চাকরিপ্রার্থীর শক্তিরূপা সাঁধুখা জানিয়েছেন, "নিজেকে বাঙালী ভেবে একবার গর্ব হলো , আজ পঃ‌বঃ বন সহায়ক কর্মীর আবেদন পত্র টা দেখে আরও আনন্দ পেলাম কারণ আমি কোন সরকারী চাকরীর আবেদন পত্র ও নির্দেশিকা পুরো টাই বাংলায় পেলাম , যেখানে ১০০ এর পরীক্ষায় ৬০ শুধু বাংলা ভাষার দক্ষতায় আর ১০ হিন্দি বা ইংরাজী ভাষার জন্য। সত্যিই বাংলা পক্ষ আজ বাঙালী কে হৃত গৌরব ফিরিয়ে দিয়েছে , আজ বলতে বাধা নেই "ঠুকে বল ছাতি; দলের উপর জাতি", 
জয় বাংলা "

এই সাফল্যের পর আগামীতে বাংলার সব সরকারি চাকরির পরীক্ষায় (WBCS, WBPS এর নিয়োগের পরীক্ষা সহ) বাংলা পেপার বাধ্যতামূলক করার দাবিতে লড়াই চালিয়ে যেতে উদ্বুদ্ধ হচ্ছে বাংলা পক্ষ।

1 comment:

Post Bottom Ad