বাংলায় আমফানের ফলে ব্যাপক বিপর্যয়, চুপ কেন্দ্র সরকার, প্রধানমন্ত্রী নীরব - Banglar Chokh | True News for All

Breaking

Home Top Ad

Post Top Ad

Thursday, May 21, 2020

বাংলায় আমফানের ফলে ব্যাপক বিপর্যয়, চুপ কেন্দ্র সরকার, প্রধানমন্ত্রী নীরব

করোনা মহামারীর মাঝেই বাংলায় আছড়ে পড়ল ভয়ংকর সুপার সাইক্লোন আমফান। ঝড়ের তান্ডবে বাংলার ৫-৬ টি জেলা প্রায় ধ্বংসস্তূপ। কয়েকলাখ বাড়ি, গাছ-পালা ভেঙে পড়েছে, মৃত্যু হয়েছে অনেকের। চাষের জমির ফসল ব্যাপক ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত৷

দুই চব্বিশ পরগনা, পূর্ব মেদিনীপুর, হাওড়া, হুগলী, নদীয়া ও কলকাতা ব্যাপক ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত। এই বিপদে কেন্দ্র সরকার একেবারে নীরব। ১৫ ঘন্টা কেটে গেলেও প্রধানমন্ত্রী বা রাষ্ট্রপতি কোনো ট্যুইট পর্যন্ত করেনি। প্রধানমন্ত্রী আশা ভোঁসলের ছেলের শরীর খারাপ হলে বা লন্ডনে বাস দুর্ঘটনা হলে ট্যুইট করেন। কিন্তু বাংলার এত বড় বিপর্যয়ের পরও রাষ্ট্রের প্রধানমন্ত্রী একেবারে নীরব কেন?

কেন্দ্রীয় সাহায্যের কোনো আশ্বাসও নেই, এই বিপর্যয় কে "রাষ্ট্রীয় বিপর্যয়" ঘোষণার দাবি জোরদার হলেও নীরব দিল্লী। কমপক্ষে ৫০ হাজার কোটি টাকার কেন্দ্রীয় প্যাকেজ জরুরী

গুজরাট, উত্তর প্রদেশ বা দিল্লীতে এই বিপর্যয় হলে চুপ থাকতো কেন্দ্র? এমনকি এই বিপর্যয় নিয়ে নীরব দিল্লীর হিন্দি ও ইংরেজী মিডিয়া।

রাজ্য পালের ট্যুইট ঘিরে ব্যাপক বিতর্ক। তিনি এই ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতিকে নূন্যতম ক্ষয়ক্ষতি বলেছে। তাঁকে ধিক্কার জানাচ্ছে বাংলার বাঙালি।

বাংলা ও বাঙালির প্রাণের কোনো দাম নেই দিল্লীর কাছে? বাংলা কি ভারতের অংশ না? কেন্দ্র কি বাংলার বিপদে পাশে দাঁড়াবেনা? বাংলা থেকে কেন্দ্র রাজস্ব তোলে কেন? উঠছে প্রশ্ন। রাজ্যের ১৮ জন বিজেপি সাংসদের ভূমিকায় ব্যাপক ক্ষুব্ধ বাঙালি।

-নিজস্ব সংবাদদাতা, বাংলার চোখ

2 comments:

  1. যাদের ক্ষতি হয়েছে তাদের একাউন্টে পার্সোনাল ভাবে টাকাটা যেন আসে দেশের নেতা মন্ত্রীরা খেয়ে নেবে যাদের ক্ষতি হয়েছে তারা কিছুই পাবে না এটি আবেদন থাকলো প্রধানমন্ত্রীর কাছে

    ReplyDelete

Post Bottom Ad