নোবেলজয়ী অভিজিৎ ব্যানার্জীকে বাংলার অর্থনীতিকে চাঙ্গা করার দায়িত্ব দিলেন মুখ্যমন্ত্রী - Banglar Chokh | True News for All

Breaking

Home Top Ad

Post Top Ad

Monday, April 6, 2020

নোবেলজয়ী অভিজিৎ ব্যানার্জীকে বাংলার অর্থনীতিকে চাঙ্গা করার দায়িত্ব দিলেন মুখ্যমন্ত্রী

গোটা ভারতে লক ডাউন চলছে করোনা মোকাবিলায়।  অর্থনীতির বেহাল দশা, বন্ধ সব কল কারখানা, দোকানদানিও। বাংলার অবস্থাও একই, তার উপর করোনা মোকাবিলায় মিলছে না কেন্দ্রীয় সাহায্য।
করোনা পরবর্তী পরিস্থিতিতে বাংলার অর্থনীতিকে চাঙ্গা করতে এবং স্বাস্থ্য পরিকাঠামো উন্নত করতে চার জনের বিশেষজ্ঞ কমিটি গড়ার কথা সাংবাদিক সম্মেলনে আজ জানালেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

লক ডাউন পরবর্তী পরিস্থিতিতে বাংলার অর্থনৈতিক উন্নতির দায়িত্বভার দিলেন নোবেল জয়ী অর্থনীতিবিদ, বাংলার গর্ব অভিজিৎ ব্যানার্জীকে।

এই ঘোষনার পর সামাজিক মাধ্যমে প্রশংসার ঝড়। অভিজিৎ ব্যানার্জীকে ঘিরে প্রত্যাশা বাড়ছে বাঙালির। 

13 comments:

  1. দিদির সময়োপযোগী এবং বাস্তবসম্মত সিদ্ধান্ত।

    ReplyDelete
  2. আমার দেখা এই বঙ্গের শ্রেষ্ঠ মুখ্যমন্ত্রী দিদি। রাজ্যের এই দুর্দিনে, সমস্যার ঘনঘটায় দিনে, একজন আন্তর্জাতিক মানের বিশেষজ্ঞের নিয়োগ খুব ভালো সিদ্ধান্ত। প্রত্যাশা বাড়লো, অনেক মানুষ আছেন যাঁরা পরিশ্রম ও দক্ষতার মাত্রানুসারে অর্থ পান না এবং সেই মাস মাইনেতে সংসারও চলে না, তার ওপর এই বর্তমান সংকট। দিন আনি, দিন খাই গোত্রের মানুষ থেকে শুরু করে বেসরকারি বৃত্তের সবাইয়ের যদি আর্থিক উন্নতির পরিকল্পনা করা যায়, তবে রাজ্যের বর্তমান উজ্জ্বলই হবে।

    ReplyDelete
  3. খুব ভালো সিদ্ধান্ত ! একজন প্রকৃত শিক্ষিত মানুষকে একজন শিক্ষিত মানুষই সন্মান করতে জানে ! আর এই কাজে মুখমন্ত্রী ও নোবেল জয়ী অভিজিৎ ব্যানার্জী নিশ্চই সফল হবেন আমার দৃঢ় বিশাস !

    ReplyDelete
  4. Aj mone hocche mamata banerjee kebol akjon chief minister noy...akjon Maa...amader ma..tumi aktu nijer kheal rekho...

    ReplyDelete
  5. Akhon mone hoch Che...c m noy...pm howa joruri chelo...good job ...didi

    ReplyDelete
  6. Banglar Gorbo,,,Ma mati Manus jindabad

    ReplyDelete
  7. ভারতবর্ষের প্রধানমন্ত্রী যখন মারন করোনা র গ্রাসে ভারতীয় অর্থনীতির বেহাল দশা নিয়ে খাবি খাচ্ছে এবং ভারতবর্ষের জনগন কে কখনও থালা বাজানো বা কখনও মোমবাতি জ্বালানোর টাস্ক দিয়ে কঙ্কালসার স্বাস্থ্যব্যবস্থা ঢাকতে চাইছে তখন ভারতবর্ষের শ্রেষ্ঠ দূরদর্শী প্রশাসক বাংলার মমতাময়ী মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি একদিকে নিজে রাস্তায় নেমে বাংলার জনগণ কে সুস্থ ও সুরক্ষিত রাখতে অতন্দ্র প্রহরায় রয়েছেন তেমনি অন্যদিকে বিশ্ববরেণ্য নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অধ্যাপক অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায় নেতৃত্বে
    বিশেষজ্ঞ কমিটি গঠন করে করোনা পরবর্তী অর্থনৈতিক পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখার ভাবনা বাংলার দশ কোটি মানুষ কে ভরসা দিয়েছেন।

    ReplyDelete
  8. Khub Valo akta sidhanto.all the best.

    ReplyDelete
  9. Untited we stand divided we fall ..mone hoche kotha ta sothik..Dr.Banerjee jodi dayito niye thaken tahole execution amader sokolonkei mon pran hindu muslim sikh christian jati bhedabhed na kore Agiye jabo ..Jai hind .

    ReplyDelete
  10. "অভিনন্দন" রাজ্যের বিশাল মানব সম্পদকে কাজে লাগিয়ে জনোমুখি অর্থনীতিক পরিকল্পনাই উত্তরণের একমাত্র পথ। এর কোনো বিকল্প নেই। এই পরিকল্পনা তৈরির ক্ষেত্রে ওনার মত একজন পারদর্শী প্রো পিপল অর্থনীতিবিদ দায়িত্বে আসায় নিশ্চই আশার আলো দেখা যেতে পারে। সাধারণ মানুষ হিসেবে এটাই আমার উপলব্ধি।

    ReplyDelete
  11. সুন্দর সিদ্ধান্ত। মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রীর যুক্তিসম্মত সিদ্ধান্ত। আশাকরি বাংলাই পথ দেখাবে বাকি রাজ্যগুলিকে। সমগ্র ভারতের গর্ব অভিজিৎ বিনায়ক। সারা পৃথিবীর মানুষ বাঁচুক। অর্থনৈতিক অবস্থার উন্নতি হোক। বাংলাই পথ দেখাবে।

    ReplyDelete
  12. অভিজিৎ বিনায়ক নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ। ডুবে যাওয়া অর্থনৈতিক অবস্থার উন্নতি ঘটানো এখন চ্যানেঞ্জ। সেই বিশেষ জ্ঞান যোগ হবে বাংলার অর্থ নীতিতে। আর্থ সামাজিক সুস্বাস্থ্যের দিকে নজর। মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

    ReplyDelete
  13. 'নিজের সুখে প্রায় সর্বদা ব্যতিব্যস্ত অধিকাংশ মানুষেরপক্ষে এই রোগের ডাক শোনাটাই কঠিন হয়ে দাঁড়ায়, অথচ একটু অন্যের অসুখে সেবা করতে পারলে নিজের অসুখ অনেকটা কমে আসে। কারণ মানুষের সব থেকে বড় রোগ তার স্বার্থপরতা।
    অসুখে- যদি না গিয়ে থাকে মারা--
    শোবার আগে মশারী গোঁজে মা- রা।'
    --- এ তনু ভরিয়া
    দর্শন আপাদমস্তক
    -অরিন্দম চক্রবর্ত্তী

    ReplyDelete

Post Bottom Ad