কলকাতার নতুন শেরিফ হতে চলেছেন লেখক শংকর - Banglar Chokh | True News for All

Breaking

Home Top Ad

Post Top Ad

Saturday, July 13, 2019

কলকাতার নতুন শেরিফ হতে চলেছেন লেখক শংকর

কলকাতার নতুন শেরিফ হতে চলেছেন লেখক শংকর ওরফে মণিশংকর মুখোপাধ্যায়। কলকাতা হাইকোর্টের মনোনয়ন অনুযায়ী আগামী সোমবার আনুষ্ঠানিক ভাবে এই পদের দায়িত্ব নিতে চলেছেন তিনি। এর আগে চিকিৎসক সঞ্জয় মুখোপাধ্যায় কলকাতার শেরিফ ছিলেন।

১৯৩৩-এর ৭ ডিসেম্বর অধুনা বাংলাদেশের যশোহরের বনগ্রামে জন্ম শংকরের। বাবা হরিপদ মুখোপাধ্যায় পেশায় ছিলেন আইনজীবী। শংকরের ছোটবেলা কেটেছে হাওড়ায়। জীবনের শুরুতে কখনও শিক্ষকতা, কখনও হাইকোর্ট পাড়ায় কাজ করলেও লেখালেখির প্রতি গোড়া থেকেই অনুরক্ত তিনি।

কলকাতা হাইকোর্টের শেষ ইংরেজ ব্যারিস্টার নোয়েল ফ্রেডরিক বারওয়েলের অধীনেও কাজ করেছেন শংকর। ১৯৫৩–তে বারওয়েলের মৃত্যুর পরেই লেখালিখিতে পাকাপাকি ভাবে চলে আসেন তিনি। ‘চৌরঙ্গী’, ‘জনঅরণ্য’, ‘অচেনা অজানা বিবেকানন্দ’, ‘সীমাবদ্ধ’ ‘কত অজানারে’ সমেত অসংখ্য জনপ্রিয় বইয়ের প্রণেতাও শংকর।

ব্রিটিশ আমল থেকেই কলকাতার শেরিফ পদটি রয়েছে। অগ্রগণ্যতা ক্রমানুসারে, শেরিফ মেয়রের ঠিক পরবর্তী পদ। ভারতের একমাত্র মুম্বই ও কলকাতায় এই ঐতিহ্যবাহী পদটি বজায় আছে। শেরিফের কলকাতা হাইকোর্টে একটি পৃথক অফিস থাকে। শেরিফ বিভিন্ন শহর সংক্রান্ত কার্যাবলী এবং সম্মেলন সভাপতিত্ব করেন এবং সরকারের বিদেশী অতিথিদের অভ্যর্থনার দায়িত্বে থাকেন।

রাজা দিগম্বর মিত্র (১৮১৭-১৮৭৯) ছিলেন প্রথম বাঙালি শেরিফ (১৮৭৪) | শ্রীমতি সুচিত্রা মিত্র এই পদের জন্য প্রথম নির্বাচিত নারী(২০০১)। শ্রীরামকৃষ্ণ দেবের চিকিৎসক মহেন্দ্রলাল সরকার, আবার সাম্প্রতিক অতীতে অভিনেতা রঞ্জিত মল্লিক, চুনী গোস্বামী , সুনীল গঙ্গোপাধ্যায় সহ সমাজের বহু বিশিষ্ট মানুষ এই পদে থেকেছেন।



No comments:

Post a Comment

Post Bottom Ad