তৃণমূলের টাকা নিয়ে হিন্দুত্বের ক্ষতি করছে বজরং দলের নেতারা, ক্ষোভ কর্মীদের - Banglar Chokh | True News for All

Breaking

Home Top Ad

Post Top Ad

Wednesday, January 2, 2019

তৃণমূলের টাকা নিয়ে হিন্দুত্বের ক্ষতি করছে বজরং দলের নেতারা, ক্ষোভ কর্মীদের

"মুখে হিন্দুত্বের কথা বললেও, তৃণমূলের টাকা খেয়ে হিন্দুত্বের ক্ষতি করছে বজরং দলের রাজ্য নেতারা"- ক্ষোভ উগরে দিলেন এক বজরং দল কর্মী। তিনি বলেন, "২০১৬ র পর থেকে রাজ্যে যেভাবে বজরং দল, আর এস এস ও বিশ্ব হিন্দু পরিষদের প্রভাব বাড়ছিল, তার ক্ষতি করেছে রাজ্য নেতারাই। এখন দেখুন যেন হিন্দুত্বের ভাটা চলছে। এর জন্য নেতারা দায়ী।"

"আমরা যোগ দিয়েছিলাম, বাংলায় মোল্লাদের বাড়বাড়ন্ত কমাতে। হিন্দু রাজ প্রতিষ্ঠা করতে। ঘরে বাবা মার বাধা কাটিয়ে রাম নবমীর মিছিলে অস্ত্র নিয়ে হেঁটেছিলাম। প্রাণ দিতেও প্রস্তুত বজরং বলীর নামে। কিন্তু আমাদের আবেগ নিয়ে খেলেছে নেতারা। আমাদের সাপোর্টার সংখ্যা দেখিয়ে তৃণমূলের টাকা খেয়েছে নেতারা। দামী বাড়ি, গাড়ি হয়েছে। "- মত নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক আর এক কর্মীর।

"নেতারা তৃণমূলের টাকা নিচ্ছে, মমতাজ বেগমের দলের থেকেই নিচ্ছে। বিজেপি হিন্দুদের নিয়ে খেলছে আর বজরং দল তৃণমূলের সাথে সেটিং করছে। তাই এসব বজরং দল করে নিজেদের ক্ষতি করছি আমরা। আমরা সব ভুলে যোগ দিয়েছিলাম। "- বক্তব্য উত্তরবঙ্গের এক হিন্দুত্ববাদীর। যার টোটোতে বজরং দলের পতাকা বাঁধা, ফোনে বাজে নানা হিন্দুত্ববাদী গান।

বাংলার চোখের প্রতিনিধি গোপনে বজরং দলের বিভিন্ন কর্মীর সাথে যোগাযোগ করে। তাতেই উঠে আসে এইসব চাঞ্চল্যকর তথ্য। বজরং দলের নেতারা দুর্নীতিগ্রস্ত। হিন্দুত্বের বাজার ভালো, তাই সেই বুঝে অনেকে ব্যবসায় নেমেছে বলে মত রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের। যুব সমাজের একাংশের সাম্প্রদায়িক মানসিকতা কে কাজে লাগিয়ে এরা ব্যবসা করছে বলে জানান তদন্তে সাহায্য করা বজরং দলের এক নেতা।

কর্মীদের মধ্যে চোরাস্রোত, তাদের মতে তারা বিশ্বাসঘাতকতার শিকার। তাই অনেকেই বজরং দল ছাড়ছেন, অনেকেই আবার নিষ্ক্রিয়।

No comments:

Post a Comment

Post Bottom Ad