বড়দিনে নজিরবিহীন নোংরামি বহিরাগত যুবকদের! মহিলাদের শ্লীলতাহানি! - Banglar Chokh | True News for All

Breaking

Home Top Ad

Post Top Ad

Tuesday, December 25, 2018

বড়দিনে নজিরবিহীন নোংরামি বহিরাগত যুবকদের! মহিলাদের শ্লীলতাহানি!

বড়দিন ভিড় উপচে পড়েছে পার্কস্ট্রীট থেকে দিঘা, দার্জিলিং সর্বত্র। ঠান্ডা পড়েছে বেশ জমিয়ে, যা উৎসবের উত্তাপ বাড়িয়ে দিয়েছে। বাঙালি রাস্তায় নেমেছিল চেটেপুটে শীতের ছুটি উপভোগ করতে।

কিন্তু বহিরাগত হিন্দিভাষীদের নজিরবিহীন নোংরামি দেখল বাংলা। পার্কস্ট্রীট থেকে দীঘা মহিলাদের উত্যক্ত করতে দেখা গেল। ভিড়ের সুযোগ নিয়ে মহিলাদের শরীরের আনাচে কানাচে ঘুরে বেরিয়েছে যুবকদের হাত। পার্কস্ট্রীটে পুলিসি প্রহরা ছিল আঁটোসাঁটো। কিন্তু তার মধ্যেও সুযোগ বুঝে শ্লীলতাহানি করেছে, নোংরামির শিকার মহিলাদের মতে এদের বেশিরভাগই হিন্দিভাষী। কাউকে কাউকে তো "জয় শ্রীরাম" বলতেও শোনা গেছে বারবার। পুলিসি কড়া নজরদারি না থাকলে হয়ত আরও বিপদে পড়ত মেয়েরা।


সব থেকে বেশি সমস্যা হয়েছে দীঘায়। দীঘার নানা দোকান ও হোটেল মালিকদের মতে এত বিহারী আগে দীঘায় আসত না। সমস্যা কম ছিল। গত কয়েকবছরে বিহার ও উত্তর প্রদেশের অনেক লোক দীঘায় আসছে। ব্যবসা বেড়েছে, কিন্তু নোংরামির বহর বেড়েছে কয়েকগুণ। ভিড় বিচে ঢেউয়ের সুযোগ নিয়ে মহিলাদের শরীর স্পর্শ করেছে এই গুন্ডাদের দল। নানা মহিলা বাংলার চোখ কে জানান, "দীঘায় এ জিনিস ছিল না আগে, এত নোংরামি! বেশিরভাগই হিন্দিভাষী! মেয়েদের নিয়ে কমেন্ট শুনলেই বোঝা যায় এরা কোথা থেকে এসেছে। বাঙালিরা অনেকে নোংরামি করে, কিন্তু এদের মেয়েদের দেখার চোখ ও টোন টিটকিরিই অন্য রকম। "

চারিদিকে যে ভাবে বহিরাগত যুবকদের তান্ডব বাড়ছে, তাতে দুঃশ্চিন্তায় বাংলার মেয়েরা। এ কথা বলছেন অনেক সমাজ কর্মী ও মহিলাদের অধিকার নিয়ে কাজ করা সংগঠনও।

No comments:

Post a Comment

Post Bottom Ad