এনআরসির নামে বাঙালিকে হিন্দু-মুসলমানে ভাগ করার চক্রান্ত চলছে : তপোধীর ভট্টাচার্য - Banglar Chokh | True News for All

Breaking

Home Top Ad

Post Top Ad

Sunday, December 23, 2018

এনআরসির নামে বাঙালিকে হিন্দু-মুসলমানে ভাগ করার চক্রান্ত চলছে : তপোধীর ভট্টাচার্য


" আসামে বাঙালিকে হিন্দু -মুসলমানে ভাগ করার ঘৃণ্য চক্রান্ত চলছে।" শনিবার যাদবপুর সুলেখা মোড়ে  বাংলা পক্ষ নামক সংগঠন আয়োজিত এক জনসভায় ত্রুটিপূর্ণ এনআরসি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে বাঙালির ওপর অত্যাচারের প্রতিবাদে এভাবেই সুর চড়ালেন আসাম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন উপাচার্য ড. তপোধীর ভট্টাচার্য।এদিন সভায় উপস্থিত ছিলেন আসাম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন উপাচার্য ও বাঙালি আন্দোলনের মুখ তপোধীর ভট্টাচার্য,আসামের বাঙালি নেতা প্রসেনজিৎ বিশ্বাস,বাংলা পক্ষর মুখপাত্র গর্গ চ্যাটার্জি, সারা আসাম বাঙালি সংহতি মঞ্চের মুখপাত্র নীতিশ বিশ্বাস,সারা ভারত বাঙালি উদ্বাস্তু সমন্বয় সমিতির সভাপতি আশিস ঠাকুর প্রমুখ।
এদিন তপোধীর বাবু বলেন,"বাঙালির কোনো ধর্মীয় বিভাজন করা যাবে না। বাঙালি বাঙালিই। সব বাঙালিকে ঐক্যবদ্ধ হতেই হবে"। তিনি আরও বলেন,"৩৮ লাখ বাঙালির নাম বাদ পড়েছে। আরো প্রায় ১৫ লাখ বাঙালির নাম বাদ পড়ার সম্ভাবনা আছে।"

বাংলা পক্ষ সংগঠনের মুখপাত্র অধ্যাপক ড. গর্গ চ্যাটার্জী বলেন,"এনআরসি তালিকা থেকে নাম বাদ যাওয়া ৩৮ লাখ বাঙালির মধ্যে ২৮ লাখই হিন্দু বাঙালি। এনআরসির কারণে যে ৪০ জন বাঙালি আত্মহত্যা করেছে তাদের মধ্যে ২৫ জন হিন্দু বাঙালি। অথচ বিজেপি সারাদেশে মিথ্যাপ্রচার করছে, এনআরসি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে শুধুমাত্র অবৈধ বাংলাদেশী মুসলমান তাড়ানো হচ্ছে। ১৯৭১-র আগের রিফিউজি কার্ডকে এনআরসির জন্য দরকারি নথির তালিকা থেকে বাদ দিয়েছে বিজেপি। রিফিউজি কার্ড ছিল প্রধানত হিন্দু বাঙালির। এরপরেও হিন্দু বাঙালির কাছে ভোট চাইতে বিজেপির লজ্জা লাগেনা?"


আসামের বাঙালি সংগঠনের নেতা অধ্যাপক প্রসেনজিৎ বিশ্বাসের কথায়,"আসামে এনআরসির নামে বাঙালিদের উপর ভয়াবহ অত্যাচার চালাচ্ছে অসমীয়া জাতিবাদী বিজেপি সরকার।ধর্ম দেখে নয়,আসামে বাঙালি মুখের ভাষা দেখে আক্রান্ত। এনআরসি তে নাম না ওঠার কারণ জানতে চাইলে,  সরকার দেখাচ্ছে' নো রিজন'(বিনা কারণে), 'টেকনিক্যাল রিজন'(প্রযুক্তিগত কারণ),' সফটওয়্যার প্রব্লেম'(সফটওয়্যার সমস্যা)। বাঙালিদের নাগরিকত্ব প্রমাণের উপযুক্ত নথি থাকলেও তা ইচ্ছাকৃতভাবে গ্রাহ্য করা হচ্ছেনা। বাঙালিদের টার্গেট করে মারছে বিজেপি। সারাদেশে এখন বাঙালিকে বাংলাদেশি তকমা দিয়ে দেশছাড়া করার চেষ্টা করা হচ্ছে।"

সারা ভারত বাংলা ভাষা মঞ্চের নেতা নীতিশ বিশ্বাসের বক্তব্য,"ব্যাঙ্গালোরে ১৩০০০  বাঙালিকে তাড়ানোর চক্রান্ত করছে সেখানকার বিজেপি বিধায়ক। আন্দামানেও বাঙালি খেদাও শুরু হয়েছে। আসামে বাঙালীদের পরিস্থিতি ভয়াবহ। বাঙালির এই বিপন্নতা নিয়ে কেন কোন প্রতিবাদ নেই পশ্চিমবঙ্গের বুদ্ধিজীবীদের ? অতি উদারতা দেখিয়ে কেন তারা নীরব ?"

No comments:

Post a Comment

Post Bottom Ad