দেশের মধ্যে সেরা মুখ্যমন্ত্রীর সম্মান পেলেন মমতা - Banglar Chokh | True News for All

Breaking

Home Top Ad

Post Top Ad

Friday, December 21, 2018

দেশের মধ্যে সেরা মুখ্যমন্ত্রীর সম্মান পেলেন মমতা


কন্যাশ্রী’ প্রকল্পের দৌলতে আগেই বিশ্বের দরবারে সুনাম কুড়িয়েছেন। পেয়েছেন নানা সম্মান-শিরোপা। 

এবার পশ্চিমবঙ্গের সার্বিক উন্নয়নের জন্য চলতি বছরের ‘স্কচ মুখ্যমন্ত্রী’র মুকুট উঠল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মাথায়। একইসঙ্গে, দেশের সেরা মুখ্যমন্ত্রী হিসেবেও উঠে এসেছে তৃণমূল কংগ্রেস সুপ্রিমোর নাম। 

৩৪ বছরের বাম শাসনের অবসান ঘটিয়ে ২০১১ সালে পশ্চিমবঙ্গের মসনদ দখল করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর নেওয়া বিভিন্ন উন্নয়নমূলক প্রকল্পে উপকৃত হয়েছেন রাজ্যবাসী। রাস্তা-ঘাট থেকে শিক্ষা, স্বাস্থ্য থেকে কৃষি প্রভৃতি ক্ষেত্রে উন্নয়নের জন্য জনগণের আস্থা অর্জন করেছেন তৃণমূল সুপ্রিমো। যার জেরে ২০১৬ সালে বিপুল ভোটে জয়লাভ করে ক্ষমতায় ফেরেন তিনি। তারপর থেকে বিভিন্ন ক্ষেত্রে উন্নয়নের কাজ চলছে। সেই সমস্ত প্রকল্পের ফল হাতে নাতে পেয়েছেন রাজ্যের আট থেকে আশি।

এবার সেই স্বীকৃতি স্বরূপ স্কচ গোষ্ঠীর বিচারে দেশের সেরা মুখ্যমন্ত্রীর সম্মান পেলেন মমতা। একইসঙ্গে, বিভিন্ন ক্ষেত্রে অভিনব প্রকল্প এবং সেগুলি বাস্তবায়নের জন্য ৩১টি ‘স্কচ অ্যাওয়ার্ড’ পেয়েছে তাঁর সরকার। গোষ্ঠীর তরফে ট্যুইট করে এখবর জানানো হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রীকে অভিনন্দন জানিয়ে লেখা হয়েছে, ‘প্রশাসন চালানোয় শীর্ষে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। স্কচ গভার্নেন্স রিপোর্ট ২০১৮ অনুযায়ী প্রশাসন চালানোয় শীর্ষ স্থান দখল করেছে পশ্চিমবঙ্গ।’ 

প্রশাসন, সংস্কৃতি, অর্থ, গ্রাম ও নগরোন্নয়নে অবদানের জন্য মুখ্যমন্ত্রীকে এই সম্মানে ভূষিত করা হয়েছে।স্কচ গ্রুপের তরফ থেকে শিক্ষা ও স্বাস্থ্যক্ষেত্রে সারা দেশে সেরা পারফরমেন্সের জন্য স্বীকৃতিও পেয়েছে বাংলা।

শিশুকন্যাদের উন্নয়নে কন্যাশ্রী প্রকল্পের জন্য ব্যাপক প্রশংসা অর্জন করেছেন মমতা। যার ফলে রাষ্ট্রসঙ্ঘের সর্বোচ্চ জনসেবামূলক পুরস্কার পেয়েছেন তিনি। আর্থসামাজিক দিক থেকে পিছিয়ে পড়া শিশুকন্যারা এই কন্যাশ্রী প্রকল্পের মাধ্যমে পাওয়া টাকায় প্রভূত উপকৃত হয়েছে। উচ্চশিক্ষায় শামিল হতে পারছে তারা।

 রাজ্যে কর্মদিবস তৈরি এবং ১০০ দিনের কাজে বরাদ্দ অর্থ খরচের জন্য স্কচ গোষ্ঠীর বিচারে দেশে শীর্ষস্থান অর্জন করেছে পশ্চিমবঙ্গ। 

একইসঙ্গে, কৃষিক্ষেত্রে বিশেষ উন্নয়নের জন্য পরপর পাঁচবার ‘কৃষি কর্মন’ পুরস্কার জিতেছে এই রাজ্য। এছাড়া গ্রামে বিদ্যুদয়নের জন্য ‘আইপিপিএআই’ সম্মান পেয়েছে পশ্চিমবঙ্গ। 

১৯৭৭ সাল থেকে আর্থসামাজিক প্রেক্ষাপটে সার্বিক বৃদ্ধি নিয়ে কাজ করছে জাতীয় নিরীক্ষক সংস্থা স্কচ গ্রুপ।

No comments:

Post a Comment

Post Bottom Ad