বিশ বাঁও জলে বিজেপির রথযাত্রা, হতাশ কর্মীরা - Banglar Chokh | True News for All

Breaking

Home Top Ad

Post Top Ad

Monday, December 31, 2018

বিশ বাঁও জলে বিজেপির রথযাত্রা, হতাশ কর্মীরা


আইনি জটে রথের চাকা আটকে যাওয়ায় রাজ্য বিজেপি নেতারা রীতিমতো ব্যাকফুটে। যার জেরে একদিকে কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের ধমক, অন্যদিকে নিচুতলার কর্মীদের মনোবলে চিড় ধরা— সবমিলিয়ে নতুন বছরের গোড়ায় গেরুয়া শিবিরে প্রবল অনিশ্চয়তা। কারণ, খোদ সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহের পরিকল্পনা মতো রাজ্যের তিনটি প্রান্ত থেকে রথ বের করার কথা ছিল বিজেপির। ৪২টি লোকসভা কেন্দ্র ঘুরে ভোটের আগে পদ্ম শিবিরকে চাঙ্গা করার লক্ষ্যে এই কর্মসূচির আয়োজন করা হয়েছিল। বর্তমানে রথের ভাগ্য সুপ্রিম কোর্টে ঝুলে রয়েছে। স্বভাবতই এই মুহূর্তে রীতিমতো হাত-পা বাঁধা অবস্থায় রয়েছে বিজেপি। কারণ, রথও বের করতে পারছে না, আবার অনুমতির বিষয়টি আদালতের বিচারাধীন বলে এ নিয়ে জঙ্গি কায়দায় আন্দোলনও করা যাচ্ছে না। দলের এক রাজ্য নেতার কথায়, পরিকল্পনার গোড়ায় গলদ ছিল। রথ নিয়ে বিকল্প পরিকল্পনা করে রাখা উচিত ছিল। কারণ, অতীত অভিজ্ঞতা বলছে, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রশাসন বিজেপিকে সহজে রাজনৈতিক কর্মসূচি করতে দেয়নি।
যদিও এই দাবি উড়িয়ে দিয়েছেন রাজ্য বিজেপির অন্যতম সাধারণ সম্পাদক সায়ন্তন বসু। তাঁর দাবি, রথ আমরা বের করবই। আশা করি, সুপ্রিম কোর্টে ন্যায় বিচার পাব। কিন্তু ততদিনে তো অনেক দেরি হয়ে যাবে, রথের বহর কি তাতে কমবে? জবাবে সায়ন্তনবাবু বলেন, আদালত অনুমতি দিলে তিনটির বদলে আরও একাধিক রথ বের করব। প্রতিদিন বড় ধরনের সমাবেশ করব। কর্মসূচির দিন কমলেও বিজেপির রাজনৈতিক ঝাঁঝ তাতে এতটুকু কমবে না বলেও জানান তিনি। যদিও দলের রাজ্য কমিটির এক নেতার দাবি, রথ এভাবে গাড্ডায় পড়ে যাওয়ায় কর্মীদের মনোবল ধাক্কা খেয়েছে। দলের শীর্ষ নেতৃত্বের মধ্যে রথ নিয়ে একাধিক মতামত উঠে এসেছে। যার খেসারত দিতে হচ্ছে আমাদের। লোকসভা ভোটের আগে রাজ্যজুড়ে গেরুয়া হাওয়াকে ঝড়ে পরিণত করতে যে কর্মসূচি আমাদের কাছে অনুঘটকের কাজ করত, তাই এখন গলার কাঁটা হয়ে দাঁড়িয়েছে।

No comments:

Post a Comment

Post Bottom Ad