হিন্দি স্কলারশিপ চালু রাজ্যের, নিন্দার ঝড় সোশ্যাল মিডিয়ায় - Banglar Chokh | True News for All

Breaking

Home Top Ad

Post Top Ad

Friday, December 14, 2018

হিন্দি স্কলারশিপ চালু রাজ্যের, নিন্দার ঝড় সোশ্যাল মিডিয়ায়


হিন্দি নিয়ে পড়াশোনা করা অহিন্দি ভাষী দের জন্য স্কলারশিপ চালু করার বিজ্ঞপ্তি জারি করল রাজ্য সরকার, নাম হিন্দি স্কলারশিপ। হিন্দি কে অন্য ভাষার ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে জনপ্রিয় করে তোলার উদ্দেশ্যে এই বৃত্তি চালু করা হল বলে বিকাশ ভবন সূত্রে খবর। মাধ্যমিক স্তর থেকে পিএইচডি স্তর পর্যন্ত এই বৃত্তির ব্যবস্থা করেছে রাজ্য সরকার। এই বিজ্ঞপ্তি ঘোষণার পর থেকেই তীব্র নিন্দার ঝড় উঠেছে সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে। এই সিদ্ধান্তকে বাঙালি বিরোধী বলেই মনে করছে  একটা বড় অংশের ক্ষুব্ধ বাঙালি। তাদের বক্তব্য মূলত তিনটি-- ১. বাঙালির করের টাকায় কেন বাংলায় বহিরাগত ভাষা হিন্দি কে তুলে ধরবে সরকার ? ২. যে সময়ে দাঁড়িয়ে নতুন প্রজন্মের বাঙালি ছাত্র-ছাত্রীদের কাছে বাংলা ভাষাশিক্ষা ক্রমে গুরুত্ব হারাচ্ছে সে সময়ে হিন্দি ভাষা শিক্ষা কে উৎসাহিত করার যৌক্তিকতা কি ? ৩. যদি কোন ভাষাকে তুলে ধরতেই হয় তাহলে বাংলা, সাঁওতালির মত বাংলার ভূমিজ ভাষাকে কেন তুলে ধরা হবে না ?
যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র জনৈক অভীক সাহার এ বিষয়ে বক্তব্য-- "সরকারের ভুলে গেলে চলবে না পশ্চিমবঙ্গ বাংলা ভাষার ভিত্তিতে গঠিত রাজ্য, রাজ্যের প্রায় ৮৫% বাঙালি। এহেন রাজ্যে বাংলা কে বাদ দিয়ে হিন্দি কে অগ্রাধিকার দেওয়ার কোনো যৌক্তিকতা থাকতে পারে না। এই পদক্ষেপ যে রাজনৈতিক স্বার্থ চরিতার্থ করার জন্য তা সকলের কাছে স্পষ্ট।"
যাদবপুরের হিন্দিভাষী ছাত্র সংগঠনের এক যুবনেতা অঙ্কিত পান্ডের কথায়--"আমরা রাষ্ট্রবাদী। এসব হিন্দি স্কলারশিপ দিয়ে কিছুই হবে না। তৃণমূল হিন্দিভাষীদের কোন স্বার্থ রক্ষা করে না। মমতাজ বেগমকে চেয়ার থেকে সরালে তবেই হিন্দি ভাষীদের অধিকার সুরক্ষিত থাকবে।"
প্রসঙ্গক্রমে সম্প্রতি মুখ্যমন্ত্রী হিন্দি বিশ্ববিদ্যালয় তৈরির ঘোষণা করেন, পুরসভার চাকরিতে বিহারী সংরক্ষণের কথাও বলেন। হিন্দিভাষীদের দল বলে পরিচিত বিজেপির হিন্দি ভোটব্যাঙ্কে থাবা বসাতেই সরকারের এই একের পর এক সুচিন্তিত পদক্ষেপ বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল। কিন্তু এই একের পর এক ঘোষণা মোটেই ভালো চোখে নিচ্ছে না একটা বড় অংশের বাঙালি। ভোটে রাজনীতির জন্য নেওয়া এই সকল সিদ্ধান্ত লোকসভা ভোটে বুমেরাং হয়ে ফিরবে না  তো তৃণমূলের দিকে ? রাজনৈতিক মহলে ঘুরপাক খাচ্ছে এই প্রশ্নই।

No comments:

Post a Comment

Post Bottom Ad